A Brand Name ||Official Url :: Software UI Designer| Contents Designer | OS | W€B | Server | Programming | Computing Technology ::

Legendary Bangla film Biggest actor Razzak

Legendary Bangla film Biggest actor Razzak


নীল আকাশের নীচে আমি রাস্তায় চলেছি একা…।

নীল আকাশের নায়ক, আমাদের নায়করাজ রাজ্জাক – আপনাকে আরও বেশ কিছু দিন প্রয়োজন ছিল।

Legendary Bangla film actor Razzak [ 1942 – 2017] passed away at a hospital in Dhaka. He was 76. Razzak, fondly called ‘Nayak Raj’, made tremendous contributions to Bangla cinema, and won the hearts of millions over the years. The National Award-winning actor has also earned fame as director. It must be said that Razzak earned the title “Nayak Raj” rightfully. The once struggling actor had, after all, succeeded in becoming a superstar, in fact, the very first superstar of Bangladeshi film industry. Razzak was born on January 23 in 1942 at Nagtola in Taliganj of Kolkata.

কিশোর আর শৈশবে এমনকি এখনো বাংলাদেশের চলচিত্র জগতের আইকন, কিংবদন্তি নায়করাজ রাজ্জাকের এমন কোন ছায়াছবি বাদ নেই যে দেখি নাই। ১৯৮৫ সনের পর আর ৯০ দশকের পর যখনই পত্রিকার পাতায় বা টিভিতে রিভিউ হতো নায়করাজের ছায়াছবি হবে, তখনই অপেক্ষা করতাম কখন আমার এই প্রিয় নায়কের মুভি দেখবো। এখনো দেখা হয় – সময় পেলে ইউটিউবে।

আমাদের বাংলাদেশের ১৭ কোটি মানুষের কিংবদন্তি নায়করাজ রাজ্জাক নিজেই ছিলেন চলচিত্র শিল্পের একটি ইন্ডাস্ট্রি।নায়করাজ রাজ্জাক ছিলেন বাংলাদেশের বাংলা চলচিত্রের এমন একটি উজ্জ্বল নক্ষত্র যে বাংলাদেশের চলচিত্রকে এমন প্লাটফর্মে নিয়ে গিয়েছে – নায়করাজ রাজ্জাকের অবদান চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে,তাঁর অবদান প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম স্মরণ করবে।বাংলাদেশের যারা বাংলা ছবি নিয়ে খারাপ মন্তব্য করে থাকে, তাদের উচিত – নায়করাজ রাজ্জাক স্যারের ছবিগুলো দেখা।

নায়করাজ রাজ্জাকের চির স্মরণীয় বানী —
” আমি রাজ্জাক হয়তো অন্য কোনো চাকরি করতাম অথবা ঘুরে বেড়াতাম।
জনপ্রিয় হওয়ার কথা চিন্তা করলে হবে না। আমি শুধু চেষ্টা করেছি । কঠোর অধ্যবসায় থাকতে হবে। ত্যাগ করতে শিখতে হবে। তাহলে একটা কিছু হতে পারে।”

” বীজমন্ত্র কিছু না। এই মাধ্যমটাকে (চলচ্চিত্র বা অভিনয়) আমি ভালোবাসি। আমার স্বপ্ন আর প্রেম ছিল অভিনয়কে ঘিরে। হ্যাঁ, সংসার ছিল আমার, সন্তান-সন্ততি ছিল। কিন্তু ওগুলো ছিল সেকেন্ডারি। প্রথমে ছিল অভিনয়। কীভাবে অভিনয়টা ঠিকঠাক করা যায়, এ নিয়েই ধ্যান-জ্ঞান ছিল। আর আমি টাকার পেছনে ঘুরিনি, টাকা আমার পেছনে ছুটেছে। এখন হয়ে গেছে উল্টো। অধিকাংশ মানুষই টাকার পেছনে ঘুরছে।”

— ” সবচেয়ে বড় কথা আমি সংযত থাকতে শিখেছি। কোথায় ছিলাম কোথায় এলাম, এই ভাবনা আমার মধ্যে সবসময় জাগ্রত ছিল। নিজের অবস্থান সম্পর্কে সচেতন থাকা সবার জন্যই জরুরি। আমার ব্যক্তিগত কিংবা অভিনয় জীবনে কোথাও কলঙ্ক লাগতে দেইনি। সবই সম্ভব হয়েছে আমার ভক্ত ও দর্শকদের সুবাদে। তাদের প্রতি আমি সবসময় কৃতজ্ঞ থেকেছি। তাদের ভালোবাসার সম্মান দেওয়ার চেষ্টা করেছি। আমার লক্ষ্য ছিল চলচ্চিত্রের উন্নতি করা। অনেক যুদ্ধ করেছি আমরা। উর্দু ফিল্মের বিরুদ্ধে বাংলা ছবির সুদিন ফেরাতে অনেক চেষ্টা করতে হয়েছে। চলচ্চিত্রে এখন তেমন যোদ্ধা নাই যারা যুদ্ধ করে ভালো সিনেমা বানাবে।”

 

 

 

 

 

আমি ১৭ কোটি মানুষের হিরো _ The Daily Star Bangla

Advertisements