RezwanAhmed & His Team || Software Engineer

Archive for September 4, 2019

Rohingya Crisis and People of India make problem in Bangladesh


বিগত ১০ – ১২ বছর আগেও বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতির মত এতটা খারাপ ছিল না। একটা দল যারা সবসময় মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে ফেনা তুলে নিজেদেরই কৃতিত্বের গল্প বলে বেড়ায়। তারপরও আমরা তাঁদের পছন্দ করি।
অথচ, বর্তমান সময়ে সবচেয়ে আলোচিত রোহিঙ্গা বিষয়ে সেই দলের নেতারা তাঁরা এতটা অসহায় যে রোহিঙ্গাদের বিষয় কঠোর ভাবে কথা বলতে পারছে না অতিরিক্ত ভারত-প্রীতির জন্য, আবার কঠোর হতেও ভয় পায় মিয়ানমারের মত একটা দেশের বিরুদ্ধে।
এখন আবার আসাম রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে বাংলাদেশের উপর ঝড় আনার চেষ্টা হচ্ছে ।

ঘৃণা করতে হচ্ছে এদের। আসলেই কি তাঁরা সত্যিকারের মুক্তিযোদ্ধা ছিল – যে বাংলাদেশের আজকের এমন অবস্থা দেখতে হচ্ছে।
** অথচ, অতীতে রোহিঙ্গা বিষয়ে অন্য বিগত সময়ের সরকার এতটাই কঠোর ছিল – মিয়ানমার ঝামেলা করতে পারে নাই, ভারতেরও কিছু করার সাহস করতো না।

*** সবচেয়ে অবাক বিষয় – বর্তমানে বাংলাদেশের সাধারন জনগণ আর বিরোধী দলকে দমন করতে তাঁরা যতটা কঠিন হয়, মিয়ানমার আর ভারতের বিষয়ে তাঁরা ততটাই ভয় পায়।

অথচ, ভারতের শত শত নাগরিক ট্যাক্স ফাকি দিয়ে বাংলাদেশে চাকুরী করছে, সহজ শর্তে বাণিজ্য করছে। সেখানে স্বাধীন বাংলাদেশের কোন নাগরিক বাণিজ্য করতে চাইলে বিভিন্ন শর্ত দিয়ে দেয় আর চাকুরীতে যারা উচ্চ পদে আছে, তাদের বিভিন্ন জবাবদিহির মাঝে রাখছে।

আজকের বাংলাদেশে, লাখ লাখ তরুনদের চাকুরী নেই।

যার বাবার আর্থিক অবস্থা ভালো, তারাই অল্প পুজিতে বাণিজ্য করে চলছে।
এসবের অবসান হবে যখন সাধারন মানুষের দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাবে।

Advertisements

Child Abuse and Rape Scene in Bangladesh


যখন একটি দেশের রাজনীতিদের মাঝে দুর্নীতির প্রবেশ করে, রাষ্ট্রের জনগণের ভোটাধিকার লুট করে, রাতের আধারে ভোট চুরি করে, তখন সেই দেশের রাজনীতি, অর্থনীতি, সব দিক থেকে আক্রান্ত হয়, বিশেষ করে সামাজিক অবস্থার চরম বিপর্যয় ঘটে, এসব ঘটনা ঘটবেই।

খুবই দুঃখজনক, বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর বর্তমান বাংলাদেশে ক্ষমতাসীনদের সময়ে কোন নারী এমন কি একটি শিশুও নিরাপদ নয়, যে কারনে ৭ বছরের মেয়ে শিশু ধর্ষণের শিকার হয়, যা অন্যান্য দলীয় সরকারের সময়ের কখনো হয় নাই। অত্যন্ত হৃদয়বিদারক যে বলায় ভাষা নেই। যেসব জানোয়ার এসব করছে, তাদেরকে আক্ষরিক অর্থে কি আইনে শাস্তি দেয়া উচিত বলায় ভাষা নেই।

যে মেয়েটির বয়স ৭ বছর, যার যৌবনের কিছুই হয় নাই, তাঁকে নিয়েও এমন লোমহর্ষক ঘটনা – যা বুঝিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশের বিচার বিভাগ আসলেই কি বিচার করতে পারে না কি বিচারের নামে প্রহসন চালাচ্ছে জনগণের উপর।

রাষ্ট্রের বর্তমানে আইন এমন দুর্বল যে তরুণী,মেয়ে শিশু ধর্ষণকারী, তরুণীকে পুড়িয়ে মারা হত্যাকারীদের আজও ফাঁসি কিংবা প্রকাশ্যে মেরে ফেলতে পারছে, কিন্তু ধর্ষক বা হত্যাকারীকে আজ পর্যন্ত ফাঁসিতে ঝুলাতে পারে নাই । আবার এসবের জন্য রাষ্ট্রের তরুণদের রাস্তায় নামতে হয় ফাঁসির জন্য, আন্দোলন করতে।

উচিত – ধর্ষণকারী আর উত্যক্ত কারীদের লিঙ্গ কর্তন করে, ফাঁসিতে ঝুলানো, সাথে এসব কুলাঙ্গারদের পরিবারের সদস্য, বিশেষ করে মা – বাবাকেও কঠিন শাস্তি প্রদান করা উচিত।

যা দেখে আগামীতে কেউ এসব করার সাহস না পায়।


DHCP Dynamic Host Configuration Protocol


DHCP – Dynamic Host Configuration Protocol [RFC 2131]. DHCP allows a host to obtain (be allocated) an IP address automatically. A network administrator can configure DHCP so that a given host receives the same IP address each time it connects to the network, or a host may be assigned a temporary IP address that will be different each time the host connects to the network. In addition to host IP address assignment, DHCP also allows a host to learn additional information, such as its subnet mask, the address of its first-hop router (often called the default gateway), and the address of its local DNS server.

DHCP’s ability to automate the network-related aspects of connecting a host into a network, it is often referred to as a plug-and-play protocol. This capability makes it very attractive to the network administrator who would otherwise have to perform these tasks manually!

DHCP is also enjoying widespread use in residential Internet access networks and in wireless LANs, where hosts join and leave the network frequently. Consider, for example, the student who carries a laptop from a dormitory room to a library to a classroom. It is likely that in each location, the student will be connecting into a new subnet and hence will need a new IP address at each location. DHCP is ideally suited to this situation, as there are many users coming and going, and addresses are needed for only a limited amount of time.