A Brand Name ||Official Url :: Software UI Designer| Database Platform | OS | W€B | Server | Programming | Computing Technology ::

Valentines Day Totally Banned for Muslim But Teenagers Like It :: That’s Culture

Red totally banned around valentines day in Saudi Arabia. An Islamic scholar told the Saudi Gazette, ” As Muslims, we shouldn’t celebrate a non-Muslim celebration.”

Islam prohibits us to blindly follow the West by adopting their customs and traditions such as the celebration of the Valentine’s Day, Celebration of Rose day, Chocolate day, Promise day, Valentine day.

But in our country, lots of Teenage, Younger Muslims have a culture to follow the European and Western culture for lack of the meaning of these days.

Valentine’s Day also known as the ‘Festival of Love’of the pagan Romans dates back to the 17th century, when paganism was on the rise in Rome. The name St. Valentine is given to two of the ancient‘ martyrs’ of the Christian Church.

Above not happened from Islam and all muslim’s best place Makkah.

পাশ্চাত্য ভোগবাদী বছরব্যাপী লাম্পট্য ও বেশ্যাব্রিত্তির অনিবারয্য প্রায়াশ্চিত্তের ১৪ ফেব্রুয়ারী। আমরা ভোগবাদী লম্পট-বেশ্যাদের অনুসারী নই, বরং পথ ভ্রস্টদের এটা একটা মানবীয় অভিশাপ।…………………………………………………………………………। ”Valentine” ছিল এক খ্রীস্টিয়ান ধরম যাযকের নাম। ২৭০ খ্রীস্টাব্দে সম্রাট ২য় “clodiaser” শাষনকালে বিবাহ নিষিদ্ধ ছিল। তার ধারনা ছিল বিয়ে করে ঘর সংসার নিয়ে ব্যাস্ত থাকলে ভাল সৈনিক হতে পারবে না ।

কিন্তু “Valentine” গোপণে বিয়ে ও প্রেমে উতসাহিত করত। সম্রাট “Clodiaser” একথা জানতে পেরে “Valentine” কে শিরোচ্ছেদ করা হয়। এর প্রায় ১৫০ বছর পর রোমানরা একটি উদ্ভট উতসবের প্রবরতন করে। সেখানে স্বেচ্ছাপ্রণোদিত মেয়েদের নাম লিখে একটি বাক্সে রেখে লটারী করত। এভাবে প্রত্যেক যুবক একজন তরুনীকে এক বছরের জন্য যৌন সঙ্গী হিসাবে বেছে নিতো। বছর শেষে আবার একই নিয়মে নতুন সঙ্গী গ্রহণ করত।
কথিত ছিল এভাবেই যুবক-যুবতীরা রমান দেবতা “Luparcus” এর সান্নিধ্য লাভ করত। এর কয়েক যুগ পর ৪৯৬ খ্রীস্টাব্দে পোপ “Gelasium” লটারী প্রথা বিলোপ করে যৌনতাকে (বেশ্যাব্রিত্তি) আরো উন্মুক্ত করে “Valentine” কে স্মরণীয় করে রাখতে ১৪ ফেব্রুয়ারীকে বেছে নেয়া হয়।

তখন থেকেই ১৪ ফেব্রুয়ারীকে “Valentine-Day” হিসাবে উদযাপন করে রোমা [Collected]

Advertisements

One response

  1. My brother recommended I might like this blog. He
    was entirely right. This put up truly made my day. You can not
    believe just how so much time I had spent
    for this information! Thank you!

    Like

    March 3, 2014 at 1:38 PM

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s